তাযকিয়া-৩

এত এত দুআ করি, এত এত সদাকাহ তবুও দুআ কবুলের কোনো খবর নেই। আল্লাহ যেন আমার কথা শুনেইনা। নাউযুবিল্লাহ। দুআ করতে করতে হতাশ হয়ে পড়েছি, নিজের উপরও আর আস্থা নেই।

আচ্ছা বলুন তো! আপনি আপনার বাবা-মার সাথে সারাদিন সারাদিন খুব অন্যায় আচরন করেন, অবাধ্য হন। তাদের কোন কথাই আপনি শুনেননা, যে কারণে তাদের সাথে আপনার দুরত্ব অনেক। এখন আপনার একটি মোবাইল কিনার শখ জেগেছে তো আপনি কি মনে করেন তারা খুশী মনে আপনাকে মোবাইল কিনে দিবে? এখন যদি তারা সেটি না দেন তাহলে এখানে দোষটা কার?

ঠিক আমরাও আমাদের জীবনে এমন এমন ভুল করি, গুনাহ করি যা আল্লাহর সাথে খুবই অন্যায়মূলক। তারপর যখন দুআ করি তিনি আমার প্রতি সন্তুষ্ট নন তাই কবুল করেননা, বলুন তো দোষটা কার?
তাহলে চলুননা নিজেই নিজের ভুল স্বীকার করি, তিনি যে কোন সময় ভুল মাফ করেন। তাকে ওয়াদা দেই আর গুনাহে না জড়ানোর দেখবেন অন্তরে শান্তি ফিরে এসেছে। দুআ করে কান্না আসতেছে আর ঠিক তখনি তিনি দুআ কবুল করবেন, অবশ্যই করবেন ইন শা আল্লাহ। আল্লাহ এত দয়াবান, এত দয়াবান যে, তিনি যখনই বান্দা ক্ষমা চায় আল্লাহ ক্ষমা করে দেন, সুবহানাল্লাহ। তাহলে আপনি প্রস্তুত তো?

যদি কোনো কারণ ছাড়াই দেখেন খুব অশান্তি লাগছে, কোন কিছু একদম ভাল লাগছেনা, দেরী না করে সাথে সাথে ইস্তেগফার পড়া শুরু করুন। এবং অনুসন্ধান করুন আমি আসলে কোন গুনাহ টি করলাম আজ?
আমরা মানুষ গুনাহ আমাদের হবেই, আল্লাহর রহমত ছাড়া উপায় নেই, আর সেটি পাবার সবচেয়ে বড় পথ হল ইস্তেগফার, যখন আপনি মনে প্রাণে ইস্তেগফার করবেন দেখবেন অনেক প্রশান্তি লাগে আলহামদুলিল্লাহ

From Uloom ul Quraan Academy -UQA
কেউ জয়েন করতে চাইলে 👇
টেলিগ্রাম চ্যানেলের লিঃক: https://t.me/Uqatazkiyah


Source